BN/690618 প্রবচন - শ্রীল প্রভুপাদ কথামৃতবিন্দু নিউ বৃন্দাবন

From Vanipedia

BN/Bengali - শ্রীল প্রভুপাদ কথামৃতবিন্দু
"শুকদেব গোস্বামী কেবলমাত্র জপ করার মাধ্যমে মোক্ষ ও পরিপূর্ণতা লাভ করেছিলেন। এই জপ মানে শ্রীমদ্ভাগবতম থেকে ভগবানের গৌরব বর্ণনা করা। তাই তিনি বলেন, প্রবর্তমানস্যা গুণৈর অনাত্মানস ততো ভবান দর্শয়া চেষ্টিতম: 'মানুষ জড় প্রকৃতির ত্রিগুণে এতই জড়িয়ে পড়ে। তাই তাদের এই জাল থেকে মুক্ত করার জন্য, তুমি পথ দেখাও। কেবল তাদের শ্রবণ করতে দিন। তাদের প্রভুর বিস্ময়কর কর্মকাণ্ডের জন্য কৌণিকভাবে গ্রহণ করতে দাও।' সেই কার্যকলাপ ... কারণ পরম ... শ্রীকৃষ্ণ পরম সত্য। সুতরাং শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীকৃষ্ণের কার্যকলাপ একই কারণ তা পরম। এটা দ্বৈততা নয়। জড় জগতে, আমি এবং আমার কার্যক্রম ভিন্ন। কিন্তু এটা হল ... এই পৃথিবী দ্বৈত বিশ্ব। কিন্তু পরম জগতে, শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীকৃষ্ণের লীলা, শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীকৃষ্ণের নাম, শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীকৃষ্ণের গুণ, শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীকৃষ্ণের খ্যাতি, তা সবই শ্রীকৃষ্ণ। সুতরাং শ্রীকৃষ্ণ এবং শ্রীকৃষ্ণের সহযোগী, তারা সবাই শ্রীকৃষ্ণ। শ্রীকৃষ্ণ রাখাল। তাই শ্রীকৃষ্ণ এবং তার গরু, তারা সবাই শ্রীকৃষ্ণ। সেটা আমাদের জানতে হবে। তারা শ্রীকৃষ্ণের থেকে আলাদা নয়। শ্রীকৃষ্ণ এবং গোপীরা, তারা সবাই শ্রীকৃষ্ণ। আনন্দ-চিন্ময়-রস-প্রতিবিভাবিতভিঃ (ব্রহ্ম সংহিতা ৫/১)। তাই আমাদের এটা বুঝতে হবে। "
৬৯০৬১৮ - প্রবচন শ্রীমদ্ভাগবত ০১/০৫/১৪ -নব বৃন্দাবন, আমেরিকা